অনলাইন সাংবাদিকতা কোর্স

উন্নত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির এই  আধুনিক যুগে  সাংবাদিকতা এবং সাংবাদিকতা শিক্ষায় ব্যাপক পরিবর্তন  হয়েছে। সারা বিশ্বে এখন অনলাইনের মাধ্যমে  উচ্চতর ডিগ্রি প্রদানসহ অসংখ্য প্রশিক্ষণ কোর্স এখন সম্পন্ন করা হচ্ছে। সাংবাদিকতার প্রতি সবচেয়ে বেশী আগ্রহ তরুণ প্রজন্মের। এছাড়া প্রবীণ বা বয়ষ্ক ব্যক্তিরা লিখতে চান- শিখতে চান সাংবাদিকতা। যাঁরা ইতোমধ্যে সাংবাদিকতা শুরু করেছেন অথবা ভবিষ্যতে সংবাদ মাধ্যমে লিখতে চান , হতে চান খ্যাতিমান সাংবাদিক-লেখক, মূলত তাঁদেরই জন্য অনলাইনে অসংখ্য কোর্স পাবেন। আপনি যদি লেখালেখী করতে আগ্রহী হন অথবা সাংবাদিকতায় গড়তে চান উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ ; তাহলে ‘সাংবাদিকতায় নলাইন  কোর্স গুলো করতে পারেন। এতে খুলে যেতে পারে জীবনের নতুন সম্ভাবনার দ্বার- গড়ে উঠতে পারে বর্ণিল ক্যারিয়ার।

অনলাইন সাংবাদিকতা কোর্স

সাংবাদিকদের ‘সব কাজের কাজী’ হতে হয়। অর্থাৎ অনেক বিষয়ে মৌলিক জ্ঞান থাকা একজন সাংবাদিকের জন্য জরুরি। সেটা খেলা, অর্থনীতি ও বাণিজ্য, আইন-আদালত, সংবিধান, জ্বালানির মতো বিষয় হতে পারে।

অনলাইন সাংবাদিকতা কোর্সের উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য :

১।একজন সাংবাদিক ও লেখক হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ে তুলতে শিক্ষার্থীদের সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করা।
২।প্রতিবেদন ও ফিচারসহ বিভিন্ন বিষয়ে লেখালেখির ব্যাপারে শিক্ষার্থীদেরকে দক্ষ ও আত্মবিশ্বাসী করে গড়ে তোলা।
৩।বিভিন্ন সংবাদপত্র ও অনলাইন পোর্টালে লেখালেখির মাধ্যমে খ্যাতিমান সাংবাদিকদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করা।
৪।সাংবাদিকতার ও লেখালেখির সাথে সংশ্লিষ্টদের দক্ষতার উন্নয়ন সাধন করা।
৫।সর্বোপরি শিক্ষার্থীদের জন্য বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ায় কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা।

সাংবাদিক হলে যেসব গুণ থাকা দরকার : ১. সিদ্ধান্ত ২. সততা ৩. ব্যক্তিত্ব ৪. ব্যবহার ৫. সাহসিকতা ৬. বস্তুনিষ্ঠতা ৭. অধ্যবসায় ৮.নিয়মানুবর্তিতা ও যোগাযোগ ৯. দায়বদ্ধতা ১০. বিচক্ষণতা।

ভর্তির যোগ্যতাঃ স্নাতক পর্যায়ে ভর্তি হতে যে কোন বিভাগ থেকে এইচএসসি পাশ হতে হবে। আর স্নাতকোত্তর বা ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তি হতে স্নাতক পাশ হতে হবে।

কোর্সের মেয়াদ: অনলাইন কোর্স গুলো  ব্যাপ্তিকাল হবে ২ মাস থেকে ১২ মাস অর্থাৎ ১ বছর। অনলাইন কোর্সগুলোর ক্ষেত্রে  শিক্ষার্থীদেরকে অনলাইনে (ই-মেইল) বা তাদের ঠিকানায় ডাকযোগে অথবা কুরিয়ার সার্ভিসে লেকচার সীট অর্থাৎ কোর্স ম্যাটারিয়্যাল’স-এর বান্ডেলগুলো পাঠানো হয়।

অনলাইন সাংবাদিকতা কোর্সগুলোতে যা থাকেঃ সংবাদ ও সাংবাদিকতা়, রিপোর্ট ও ফিচার লিখন, সম্পাদনা, প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক, অনলাইন সাংবাদিকতার সকল বিষয়সমূহ এই কোর্সের অন্তর্ভূক্ত। তাত্ত্বিক বিষয়ের পাশাপাশি থাকবে ব্যবহারিক বিষয়।

কোথায় করবেন কোর্সঃ যাদের পক্ষে এখন আর সাংবাদিকতায় স্নাতক করা সম্ভব নয়, তারাও করে নিতে পারেন ৬মাস, একবছর বা ২ বছর মেয়াদী স্নাতকোত্তর বা ডিপ্লোমা অথবা সার্টিফিকেট কোর্স। দেশের সরকারি বে-সরাকারি বহু প্রতিষ্ঠানে এ ধরণের কোর্সকরার সুযোগ রয়েছে। বাংলাদেশ তথ্য অধিদপ্তর, প্রেস ইনস্টিটিউট বা প্রেস কাউন্সিলসহ প্রথম আলো, নয়দিগন্তসহ অনেক বেসরকারি ইলেক্ট্রিক ও প্রিন্ট মিডিয়া এখন এসকল কোর্স চালু করেছে। ঢাবি, রাবি’সহ দেশের কয়েকটি পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিকতায় স্নাতক সম্মান ও স্নাতকোত্তর কোর্স রয়েছে। তাছাড়া রয়েছে ১ ও ২ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা কোর্স। কোর্স করে আপনি বিভিন্ন পত্রিকায় আপনার লেখা পাঠাতে থাকুন ও সেই সঙ্গে আপনার বায়োডাটাও পাঠাতে থাকুন।

অনলাইন কোর্সের মেয়াদ ও টাকার পরিমানঃ

একজন সাংবাদিক মূলত সংবাদপত্র, ম্যাগাজিন, রেডিও, টেলিভিশন ও ওয়েব পোর্টালের জন্য খবর জোগাড় করা, সংবাদ ও কলাম লেখা, সম্পাদনা, পরিমার্জন, পরিবেশন ও ছবি সংগ্রহের কাজ করে থাকেন। আমাদের দেশের বিভিন্ন পর্যায়ে সাংবাদিকদের কাজের প্রচুর সুযোগ রয়েছে। সাংবাদিকতার ক্ষেত্র বেশ বড় হওয়ায় অনেকেই নির্দিষ্ট বিভাগে মনোযোগ দেন। যেমন, ক্রীড়া সাংবাদিকরা শুধু খেলাধুলা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কাজ করেন।


অনলাইন সাংবাদিকতা কোর্স,অনলাইন সাংবাদিকতার বৈশিষ্ট্য,অনলাইন সাংবাদিকতা কি,অনলাইন সাংবাদিকতা pdf,অনলাইন সাংবাদিকতার নীতিমালা,অনলাইন সাংবাদিকতা বই,অনলাইন সাংবাদিকতার ইতিহাস,অনলাইন সাংবাদিকতার ভবিষ্যত,অনলাইন সাংবাদিকতা কী,অনলাইনে সাংবাদিকতা কোর্স,kfplanet.com,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *