একাদশ শ্রেণির ভর্তি বিজ্ঞপ্তি-অনলাইনে কলেজে ভর্তির আবেদন

অবশেষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি র আবেদন কার্যক্রম শুরু হয়েছে,অনলাইনে কলেজে ভর্তির আবেদন হবে এবার। অনলাইন ও এসএমএমের মধ্যমে কলেজ-মাদরাসায় ভর্তি কার্যক্রম চলছে। অনলাইনে আবেদনের জন্য আবেদনকারীকে প্রথমে মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটক, গ্রামীণফোন ও মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ বা শিওর ক্যাশের মাধ্যমে আবেদন ফি জমা দিতে হবে।  টাকা জমা দেয়ার পর কনফার্মেশন এসএমএসের ভিত্তিতে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। দেশের সবগুলো সকল বোর্ডের অধীনে কলেজগুলাতে ভর্তির যোগ্যতা নিচে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।  ভর্তির আবেদন সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য নিচে তুলে ধরা হলো।

জেনে রাখা ভালো  👉🏻

  • এসএসসি ও সমমান পাশ শিক্ষার্থীদের কলেজে ভর্তি কার্যক্রম  ৯ আগস্ট থেকে শুরু হয়ে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে।
  • শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের জেনে রাখা উচিৎ, এইবার শুধু অনলাইন থেকে ভর্তি আবেদন করা যাবে। সম্ভাব্য ক্লাশ শুরুর তারিখ  ১ সেপ্টেম্বর ২০২০।
  • এবার ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীরা সর্বনিন্ম ৫টি ও সর্বোচ্চ ১০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে পারবে।
  • এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার রেজাল্টে অনুসারে ভর্তির কার্যক্রম সম্পন্ন হবে, কোন ভর্তি পরীক্ষা হবে না।
  • এবারের আসন সংখ্যা ২২ থেকে ২৩ লাখ।

একাদশ শ্রেণির ভর্তি বিজ্ঞপ্তি

একাদশ শ্রেণির ভর্তি বিজ্ঞপ্তি

অনলাইনে কলেজে ভর্তির আবেদন

অনলাইনে কলেজে ভর্তির আবেদন

অনলাইনে যেভাবে করা যাবে আবেদন :

১।প্রথমে www.xiclassadmission.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

২।এর আগে শিক্ষার্থীকে তার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ড, পাসের সাল ব্যবহার করে এসএমএস করে টেলিটক/রকেট/শিওরক্যাশ এর মাধ্যমে ১৫০ টাকা ফি জমা দিতে হবে।

৩।এক্ষেত্রে টেলিটক সিম থেকে মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে CAD স্পেস WEB স্পেস পরীক্ষা পাসের Board এর নামের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস পরীক্ষার রোল স্পেস পরীক্ষা পাসের সন লিখে ১৬২২২ নম্বরে সেন্ড করতে হবে।

৪।ফিরতি এসএমএস এ আবেদনকারীর নাম ও আবেদন ফি বাবদ ১৫০ কেটে নেয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন কোড দেয়া হবে। ফি দিতে সম্মত থাকলে ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে CAD স্পেস YES স্পেস PIN স্পেস CONTACT NUMBER (বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পুনঃনিবন্ধিত মোবাইল নম্বর) লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

৫।ফি সঠিকভাবে জমা হলে প্রার্থীর মোবাইলে নিশ্চিতকরণের একটি Transaction IDmn SMS যাবে।

৬।এরপর প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষ হলে আবেদনকারী একটি ফরম পাবে, সেটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। একইভাবে সর্বনিম্ন ৫টি এবং সর্বোচ্চ ১০টি প্রতিষ্ঠানে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে প্রার্থীকে। অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৫টি কলেজে আবেদন করলেও ১৫০ টাকা আবার ১০টি কলেজে আবেদন করলেও ১৫০ টাকা চার্জ করবে।

কলেজ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০-২০২১

একাদশ শ্রেণির ভর্তিতে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

একাদশ শ্রেনীতে ভর্তির প্রয়োজোনীয় কাগজপত্র নিচে দেওয়া হলোঃ

১।এসএসসির মূল মার্কশিট বা একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট।

২।প্রশংসাপত্র বা টেস্টিমোনিয়াল

৩।রেজিস্ট্রেশন কার্ডের ফটোকোপি-২টা কপি।

৪।এসএসসি পরীক্ষার এডমিট কার্ড এর ফটোকপি।

৫। শিক্ষার্থীর পাসপোর্ট সাইজের ছবি -(৪-৬ কপি) এবং স্টাম্প সাইজের ছবি (২-৪) কপি।

৬।শিক্ষাবিরতি সনদপত্র(যদি গ্যাপ থাকে)

৭।কোটার সনদপত্র( যদি থাকে)

 

মোবাইলে আবেদন করার প্রক্রিয়া ( ২০২০-২১ এ শুধুমাত্র অনলাইনে করতে হবে) 

১।এসএমএমের মাধ্যমে আবেদন শুধু টেলিটক প্রি-পেইড সংযোগ থেকে সর্বোচ্চ ১০টি কলেজে আবেদন করা যাবে।

২।মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে এভাবে টাইপ করতে হবে- CAD ভর্তিচ্ছু কলেজ/মাদরাসার EIIN ভর্তিচ্ছু গ্রুপের নামের প্রথম দুই অক্ষর এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রোল নম্বর, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের সাল, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রেজিস্ট্রেশন নম্বর, ভর্তিচ্ছু শিফটের নাম ভার্সন/কোটার নাম (যদি থাকে)।

CAD <space> ভর্তিচ্ছু কলেজ/মাদরাসার EIIN<space>ভর্তিচ্ছু গ্রুপের নামের প্রথম দুই অক্ষর <space>এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর<space>এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রোল নম্বর <space>এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের সন <space>এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রেজিস্ট্রেশন নম্বর <space> ভর্তিচ্ছু শিফটের নাম <space>ভার্সন<space>কোটার নাম (যদি থাকে)

উদাহরনঃ CAD 696954 SC DHA 123456 2020 1212665968 M B FQ

i.এখানে 696954-ভর্তিচ্ছু কলেজ/সমমান প্রতিষ্ঠানের EIIN

ii.SC-ভর্তিচ্ছু গ্রুপের নামের প্রথম দুই অক্ষর (Science= SC)

iii.DHA-এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর

iv.123456-আবেদনকারীর এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রোল নম্বর

v.2020-এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের সন

vi.1212665968- আবেদনকারীর এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রেজিস্ট্রেশন নম্বর

vi.M- শিফটের নামের প্রথম অক্ষর

vii.B-ভার্সন এর প্রথম অক্ষর

viii.FQ- মুক্তিযোদ্ধা কোটা।

৩।এরপর মেসেজটি send করতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

 

ভর্তিচ্ছু গ্রুপের কিওয়ার্ডঃ

1.সাধারন বোর্ডঃ

Science এর জন্য SC

Humanities এর জন্য HU

Business Studies এর জন্য BS

Home Science এর জন্য HS

Islamic Studies এর জন্য IS

Music এর জন্য MU

2.মাদরাসা বোর্ডঃ

Science এর জন্য SC

General এর জন্য GE

Muzabbid এর জন্য MU লিখতে হবে

Hifzul Quran এর জন্য HQ লিখতে হবে

3.শিফটের ক্ষেত্রেঃ
*Morning এর জন্য M

Day এর জন্য D

Evening এর জন্য E এবং

ভর্তিচ্ছু কলেজের যদি কোন শিফট না থাকে সে ক্ষেত্রে N লিখতে হবে।

4.ভার্সনের ক্ষেত্রেঃ

* বাংলা ভার্সনের ক্ষেত্রে B আর ইংলিশ ভার্সন এর ক্ষেত্রে E লিখতে হবে।

5.কোটার ক্ষেত্রেঃ

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে এবার ৫% মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকবে কিন্তু অন্য সব কোটা কার্যকর থাকবে না।  শুধুমাত্র,  প্রতিবন্ধী, বিকেএসপি, খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক সফলদের জন্য বিশেষ ব্যাবস্থা রাখা হবে। এই কারনে তাদের সনাতন (ম্যানুয়ালি) পদ্ধতিতে আবেদন করার জন্য বলা হয়েছে।

* মুক্তিযোদ্ধা কোটার জন্য FQ এবং শিক্ষা মন্ত্রনালয়, শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অধিনস্ত দপ্তরসমুহ, স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারী এবং প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডির সদস্যদের সন্তানদের কোটার জন্য EQ এবং সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের ঘোষিত বিশেষ কোটার জন্য SQ লিখতে হবে।

কোন শিক্ষার্থী একাধিক কোটার আবেদন করার যোগ্যতা থাকলে কমা (,) দিয়ে একাধিক কোটা উল্লেখ করতে হবে। প্রবাসী কোটার ক্ষেত্রে PQ লিখতে হবে।

কোন ধরনের কোটা না থাকলে কোটার জায়গায় কিছু লিখতে হবেনা।

উল্লেখ্য যে, বিকেএসপি, বিভাগীয় ও জেলা কোটার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থী স্বয়ংক্রীইয়ভাবে বিবেচিত হবেন এবং এ জন্য শিক্ষার্থীকে কোন ইনপুট দিতে হবে না। ফিরতি এসএমএস এ আবেদনকারীর নাম, কলেজ/মাদরাসার EIIN ও নাম, গ্রুপের নাম ও শিফট সহ ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেয়া হবে তা জানিয়ে একটি PIN প্রদান করা হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে Message অপশনে গিয়ে লিখতে হবে-

CAD<space>YES<space>PIN<space>CONTACT NUMBER (শিক্ষার্থীর/অভিভাবকের ব্যবহৃত বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধিতকৃত যে কোন মোবাইল নম্বর) লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে:
উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাসকৃত আবেদন কারীদের ক্ষেত্রে রোল নম্বর এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর একই বলে বিবেচিত হবে। এ ক্ষেত্রে রোল নম্বরে অন্তর্ভুক্ত ‘-‘ চিহ্নটি উপেক্ষা করতে হবে।

 

দেশের সবগুলো স্ব স্ব বোর্ডের অধীনে কলেজগুলাতে ভর্তির জন্য মিনিমাম জিপিএ ,সিট সংখ্যা ও বিভাগের একটা চেকলিস্ট নিচে দেয়া হলো। যারা কলেজে ভর্তি হতে চান তারা পিডিএফ ডাউনলোড করে দেখে নিতে পারেন কোন কলেজে ভর্তি হতে পারবেন।     

ঢাকা বোর্ডের সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

কুমিল্লা বোর্ডের সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

রাজশাহী বোর্ডের সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

যশোর বোর্ডেরসকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

চট্রগ্রাম বোর্ডের সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

বরিশাল বোর্ডের সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

সিলেট বোর্ডের সকল সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

দিনাজপুর বোর্ডের সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 

ময়মনশিংহ শিক্ষা বোর্ডের সকল কলেজে আবেদনের তথ্য 


কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি, একাদশ শ্রেণির ভর্তি ২০২০, একাদশ শ্রেণির ভর্তি, একাদশ শ্রেণির আবেদন, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নিয়ম, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ফি, একাদশ শ্রেণীর ভর্তি ২০২০, একাদশ শ্রেণীর ভর্তি আবেদন ২০২০, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ২০২০-২০২১, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, একাদশ শ্রেণীর ভর্তি ২০২০, একাদশ শ্রেণীর ভর্তি আবেদন ২০২০, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ২০২০-২০২১, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, কলেজ ভর্তি ২০২০, সরকারি কলেজে একাদশে ভর্তি,বেসরকারি কলেজে একাদশে ভর্তি, কলেজে কিভাবে ভর্তি হতে হয়, কলেজে ভর্তির খবর, কলেজ ভর্তি তথ্য ২০২০

4 thoughts on “একাদশ শ্রেণির ভর্তি বিজ্ঞপ্তি-অনলাইনে কলেজে ভর্তির আবেদন”

  1. sir কখন থেকে ভর্তি আবেদন শুরু হবে একটু বলবে ন দয়া করে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *