চোখের নিচে কালো দাগের সমাধান

চোখের পাতার নীচে  কালো দাগ  পুরুষ এবং মহিলাদের মধ্যে খুব সাধারণ একটি বিষয়। এই কালোদাগ গুলো আপনাকে আপনার চেয়ে বয়স্ক দেখাতে পারে।তবে সব থেকে  খারাপ বিষয় হচ্ছে , এগুলি থেকে মুক্তি পাওয়া কঠিন হতে পারে।

যদিও এটা ছোয়াচে কোনো রোগ না  তবে এই কালো দাগগুলো যে লোকদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দেখা যায় :

১।বয়স্ক মাননেদের।

২।জেনেটিক কারনে।

৩।জাতিগত কারনে।

ক্লান্তি এই অবস্থার জন্য সবচেয়ে যুক্তিসঙ্গত কারন বলে মনে হতে পারে, তবে এমন  আরো অনেকগুলি কারণ রয়েছে যা চোখের নীচের কালো দাগগুলোর কারন হতে  পারে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, এগুলি নিয়ে চিন্তা করার কোনো কারন নেই   এবং চিকিত্সার ও প্রয়োজন নেই।

চোখের নিচে কালো দাগের সমাধান

চোখের নিচে কালো দাগের সমাধান

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে গেলে আগে এই কালো দাগের আসল কারন খুজে বের করতে হবে।

১।মানসিক অবসাদঃঅতিরিক্ত ঘুম, চরম অবসন্নতা বা আপনার স্বাভাবিক ঘুমানোর সময় থেকে কয়েক ঘন্টা বেশি ঘুমানোর কারণে আপনার চোখের নীচে কালো দাগ তৈরি হতে পারে।

২।বয়সঃ বয়স আপনার চোখের নিচের কালো দাগের অন্যতম কারন।

৩।চোখের সমস্যাঃ  টেলিভিশন বা কম্পিউটারের স্ক্রিনে অনেক্ষন  তাকালে আপনার চোখে এর ইফেক্ট   পড়তে পারে। এই স্ট্রেইন আপনার চোখের চারদিকে রক্তনালীগুলিকে বড় করতে পারে। ফলস্বরূপ, আপনার চোখের চারপাশের ত্বক কালো হতে পারে।

৪।অ্যালার্জিঃ অনেকসময়  অ্যালার্জির কারণে চোখের নিচে কালো দাগ পড়তে পারে।

৫।পানি শুন্যতাঃ পানিশুন্যতার কারণে চোখের নিচে কালো দাগ হয়ে যায়।যখন আপনার শরীরটি যথাযথ পরিমাণে পানি গ্রহণ করছে না, তখন আপনার চোখের নীচের ত্বক নিস্তেজ দেখা শুরু করে এবং আপনার চোখে কালো দাগ দেখা দেয়।

চোখের নিচে কালো দাগের সমাধানঃ

১।কাঁচা আলুঃ কাঁচা আলু ঠাণ্ডা করে ব্লেন্ডারে পিষে পেস্ট তৈরি করুন। সেই  পেস্ট  চোখের নিচের কালো দাগের উপর মেখে ১০-১৫ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আলু পেস্ট করতে ঝামেলা মনে হলে শসার মত স্লাইস করেও ব্যবহার করতে পারেন। সপ্তাহ জুড়ে দিনে ১-২ বার ব্যবহার করলেই চলবে।

২। শশাঃ শশার মধ্যে রয়েছে ত্বক উজ্জ্বলকারী উপাদান এবং হালকা অ্যাসট্রিসজেন্ট উপাদান। এগুলো চোখের নিচের কালো দাগ দ্রুত দূর করতে কাজ করে।

৩।গোলাপ জলঃ  ছোট্ট পরিস্কার কাপড়ের টুকরা বা আই প্যাড গোলাপ জলে ভিজিয়ে রাখুন কয়েক মিনিট। পুরো ভিজলে চোখ বন্ধ করে চোখের পাতার উপর রেখে দিন ১০-১৫ মিনিট। দিনে একবার করে ৭-১০ দিন ব্যবহার করলে চোখের স্বাভাবিক রং ফেরত আসবে।

৪।ঠাণ্ডা টি ব্যাগঃ ঠাণ্ডা টি ব্যাগ চোখের উপর রাখলে ডার্ক সার্কলের সমস্যায় ভালো ফল পাবেন। রাতে শোবার আগে অন্তত মিনিট পনেরো নিয়মিত রাখতে হবে।

৫।টমেটোঃএক চা চামচ টমেটোর রসের সঙ্গে এক চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে চোখের নিচে লাগান। ১০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে দুইবার অন্তত এই প্যাক লাগাতে হবে।

৬।দুধঃ ঠাণ্ডা দুধে একটি কটন বল ভিজিয়ে চোখে লাগান। দশ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে চোখের ফোলাভাব কমে যায়  এবং কালো দাগ দূর হবে।

৭।কমলাঃকমলার রসের সঙ্গে দুই ফোঁটা গ্লিসারিন মিশিয়ে চোখের নিচে লাগান। এটা কালো দাগ দূর করার পাশাপাশি আরও উজ্জ্বল করে তোলে।

৮।পর্যাপ্ত পরিমান ঘুমঃ নিদ্রাহিনতার কারণে চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে যায়।তাই পর্যাপ্ত পরিমান ঘুম আপনার কালো দাগ দূর করবে।


চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায়,চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায় কি,চোখের নিচে কালো দাগ কেন হয়,চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া পদ্ধতি,চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার ক্রিম,চোখের নিচে কালো দাগ হওয়ার কারণ,চোখের নিচে কালো দাগের সমাধান,চোখের নিচে কালো দাগের ক্রিম,চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়,
চোখের নিচে কালো দাগ হওয়ার কারণ কি,চোখের নিচে কালো দাগ কি ভাবে যাবে,চোখের নিচে কালো দাগ কিভাবে যায়,চোখের নিচের কালো দাগ কিভাবে দূর করা যায়,চোখের নিচে কালো দাগ হলে কি করা উচিত,চোখের নিচে কালো দাগ পড়লে কি করব,
চোখের নিচে কালো দাগ হলে কি করতে হবে,চোখের নিচে কালো দাগ হলে কি করতে হয়,চোখের নিচে কালো দাগ ও গর্ত দূর করার উপায়,চোখের নিচে কালো দাগ ভিডিও,kfplanet.com,

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *