Skip to content

নতুন প্রাইভেট কার গাড়ি কেনার আগে জেনে নিন!!

    মানুষের জীবন মান বাড়ার সাথে সাথে নতুন নতুন চাহিদা বাড়ছে। গাড়ী এখন আর বিলাসিতা নয় ,প্রয়োজন। নতুন প্রাইভেট কার গাড়ী কেনার আগে কয়েকটা বিষয় খেয়াল রাখতে হয়। আজ আমরা সে বিষয় নিয়ে আলোচনা করব।বাংলাদেশে গনপরিবহন প্রয়োজনের তুলনাই খুব কম। আবার সিন্ডিকেটের কারনে অনেক সময় পরিবহন বন্ধ থাকে।সে ক্ষেত্রে নিজস্ব গাড়ী থাকলে ভাল হয়। বাংলদেশের রাস্তাঘাত,পরিবেশ,আইন কানুন, দাম,সব বিষয় দেখে আপনার জন্য কোন গাড়িটি সুবিধা হবে সে বিষয়ে আলোচনা করা হবে। গাড়ী কেনা এখন আরও সহজ,অনেক প্রতিষ্ঠান কিস্তিতে গাড়ী বিক্রয় করছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক

    নতুন প্রাইভেট কার গাড়ি কেনার আগে জেনে নিই

    বাজেটের বিষয়ঃ বাজেটই নতুন গাড়ী কেনার ক্ষেত্রে মূল ভুমিকা পালন করে। আপনি কেমন গাড়ী কিনবেন গাড়ির ট্যাক্স, বা ব্যাংক লোণে কিনতে চাইলে তার খরচ ,সকল কিছু মাথায় রেখে দেখে নিন বাজেট  কত হওয়া দরকার।তারপর গাড়ী কেনার লক্ষ্যে এগিয়ে যান।

    কোন ব্রান্ডের গাড়ী নিবেনঃ   বাজেট করার পর আপনি কোন ব্রান্ডের গাড়ী কিনবেন সেটা ঠিক করতে হবে।  বাজারে বিভিন্ন ব্রান্ডের গাড়ী আছে ছোট বড় প্রকার ভেদে দামের ও পাথক আছে। আপনার বাজেটের সাথে মিলে কোন গাড়ী ভাল হবে এটা খুজে নিতে হবে।

     সি সি ও মাইলেজঃ গাড়ী কেনার আগে কত সি সি গাড়ী কিনতে চান, সেটা ভেবে নিবেন। সি সি যত বেশি দামটাও বেশি হবে।বাজারে অনেক সি সি গাড়ী পাওয়া যায়। যারা খরচ নিয়ে একটু বেশি ভাবেন ,তারা মাইলেস টাও দেখে নিবেন।

    কোম্পানির ব্যবসার পলিসিঃ  কিছু কোম্পানি মধ্যবিত্তের জন্য গাড়ী তৈরি করে আবার কিছু কোম্পানি বড়লোক জন্য গাড়ী তৈরি করে। আপনি মধ্যবিত্ত হলে ওইসব কোম্পানির গাড়ী দেখতে পারেন।

    কাস্তমারের মতামতঃ  গাড়ী কেনার আগে যেটা পছন্দ ক্রবেন,সেই গাড়ির সম্পর্কে কাস্তমারের মতামত কেমন এটা ভালকরে পড়ে নিবেন।

    গাড়ির যন্ত্রাংশ পাওয়া যায় কি নাঃ  যে গাড়ী কিনবেন তার যন্ত্রাংশ পাওয়া যায় কিনা সেটা খেয়াল রাখতে হবে।কারন গাড়ী খারাপ হয়ে গেলে ঠিক করা আপনার জন্য কষ্টসাধ্য হয়ে যাবে।

    গাড়ী পরবর্তীতে বিক্রয়ের জন্য কাস্তমেরর চাহিদাঃ  গাড়ী  কেনার  কিছু দিন পর ,কোন আপনার ব্যক্তিগত স্যমসার কারনে গাড়ী বিক্রি করতে চাইলে ,সেই গাড়ির চাহিদা কেমন থাকবে সেটাও মাথাই রাখতে হবে।

    নতুন গাড়ীতে টেস্ট ড্রাইভ দিবেনঃ  যে ব্রান্ডের কিনুন ছোট হোক বড়  কেনার সময় অবশ্যয় টেস্ট ড্রাইভ দিবেন।এতে আপনি বুঝতে পারবেন গাড়িটি আপনি আপনার মনের মত পাচ্ছেন কি না। গাড়ী সমন্ধে আপনার একটি ধারনা তৈরি হবে। গাড়িটি তেলে কতটুকু পার কিলোমিটারে যাচ্ছে সহজে বুঝতে  পারবেন।

    টেস্ট ড্রাইভ দেওয়ার সময় যে বিষয় গুলো মাথায় রাখবেন-

    • লাইসেন্সের কপি সাথে রাখবেন
    • হাতে সময় নিয়ে যাবেন, ঐ দিন অন্য কোন কাজ রাকবেন না
    • গাড়ী জোরে চালালে কাপে কিনা খেয়াল রাখতে হবে
    • গাড়ী সম্পর্কে ভাল বুঝে এমন একজন কে সাথে নিবেন
    • সর্ব শেষ গাড়িটি আপনার মনের মত হয়েছে কি না দেখবেন

    সর্বশেষ বলা যায়, সারা জীবনের কষ্টের টাকায় গাড়ী কিনবেন ভালভাবে দেখেশুনে বুঝে আপনার জন্য যেটা ভাল মনে হবে সেটা কিনবেন। কারও কথায় প্ররোচনাই হয়ে গাড়ী কিনবেন না কারণ কষ্টের টাকাই যেটা কিনবেন সেটা আপনার সম্পদ। সুতরাং একটি ভুল আপনার জীবনকে অনেক ভোগাতে পারে।


    গাড়ী কেনার তথ্য,নতুন গাড়ি কেনার আদ্যোপান্ত,নতুন গাড়ি ক্রয়, নতুন গাড়ি কেনার সময়,নতুন গাড়ি কেনার আগে সতর্কতা,

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.