বিয়ের আংটির ডিজাইন

সামনেই বিয়ে? নতুন সঙ্গীর কাছে আপনার রুচি, সামর্থ এবং দক্ষতা প্রকাশের চমৎকার কৌশল হচ্ছে বিয়ের আংটিটি নিজেই ডিজাইন করে ফেলা। একইসঙ্গে নিশ্চিত করা যে, আপনার আংটিটিই সেরা। তবে ডিজাইন করতে গেলে কিছু জিনিস মনে রাখা জরুরি।

বিয়ের আংটির ডিজাইন

বিয়ের আংটির ডিজাইন

১। আইডিয়া নিন
অনলাইনে বিয়ের আংটির অনেক ছবি পাওয়া যায়। ভিজিট করুন সময় করে। আপনার পছন্দের কিছু আংটির ছবি কম্পিউটারে সেভ করুন। যখন নিজের আংটির ডিজাইন করার সময় হবে তখন পছন্দের সেসব আঙটির নমুনা মিলিয়ে দেখতে পারবেন।

২। ধাতু নির্বাচন করুন
সবচেয়ে জনপ্রিয় পছন্দগুলোর মধ্যে রয়েছে সোনা, শাদা সোনা, প্লাটিনাম এবং খাঁটি রুপা। সোনা অথবা প্লাটিনাম থেকে একটি মৌলিক উপাদান বেছে নিন, যেটি আপনার ব্যবহার উপযোগী হবে। কারণ বিভিন্ন পর্যায়ে আপনার আঙুলের আকৃতির পরিবর্তন হবে। একই সঙ্গে বিভিন্ন ধাতু ব্যবহারের সুবিধা-অসুবিধাগুলো বিবেচনায় রাখুন (যেমন টিটেনিয়ামকে ভেঙে গড়াতে গেলে কঠিন হয়ে পড়ে)। উদাহরণস্বরূপ সময়ের সাথে সাথে রুপা অনুজ্জ্বল হয়ে যায় কিন্তু প্লাটিনাম কখনো তা হয় না। তবে রুপার চেয়ে প্লাটিনাম অনেক বেশি ব্যয়বহুল।

৩।অলঙ্করণ করুন
বিয়ের তারিখ অথবা আপনার জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনীর নামের আদ্যক্ষর অথবা অন্য কোনো মধুর শব্দ বা চিহ্ন অঙ্কন করুন। তাতে আংটিটি হয়ে উঠবে বিশেষ বৈশিষ্টপূর্ণ। তবে মাত্রাতিরিক্ত অলঙ্করণ নয়, তাতে খরচ বেড়ে যেতে পারে।

৪।ভালো স্বর্ণকার খুঁজে বের করুন
বিশ্বস্ত কিছু স্বর্ণকার খুঁজে বের করুন যাদের মধ্য থেকে কেউ আপনার মনের মতো করে আংটিটি তৈরি করে দিতে পারবেন। সময় নিয়ে তাদের সাথে কথা বলুন। প্রয়োজনে তাদের তৈরি করা আংটির ক্যাটালগ দেখে নিন। আপনি আপনার বাজেটের ব্যাপারে তাদের সাথে খোলামেলা আলাপ করুন। এভাবে একজন বিশ্বস্ত স্বর্ণকার নির্বাচন করুন যিনি আপনাকে ভালোভাবে বুঝতে পারবেন।

৫।বানাবেন কাকে দিয়ে
স্বর্ণকার আপনার আংটিটি তৈরি করে তার ওপর নকশা করে দেবে।  তবে অনেক স্বর্ণকার ডিজাইন বুঝে নেওয়ার পর কর্মীদের হাতে ছেড়ে দেন। কাজেই নিশ্চিত হোন কে আপনার আংটিটি তৈরি করছেন। তাকে বিশেষ যত্ন নিতে বলুন এবং কাছে বসে কাজটি তদারকি করুন।

৬।একটি ছবি এঁকে দিন
স্বর্ণকার কাজটি ভালোভাবে করতে পারবেন যদি আপনি তাকে ডিজাইনটির একটি ছবি এঁকে দেন। তাহলে আপনার কল্পনার ডিজাইনটি তিনি ভালোভাবে বুঝতে পারবেন এবং আপনার বর্ণনা শুনে নিখুঁতভাবে কাজটি সম্পন্ন করতে পারবেন।

৭।যথেষ্ট সময় দিন
বিয়ের দিন ঘনিয়ে আসার অনেক আগেই স্বর্ণকারকে কাজের জন্য অর্ডার করুন। একেবারে বিয়ের দিন আগে আগে অর্ডার করলে তিনি যত্নসহকারে কাজটি করতে পারবেন না।


বিয়ের আংটির ডিজাইন,বিয়ের আংটির দাম,বিয়ের আংটির ছবি,বিয়ের আংটি কোন আঙুলে পরে,বিয়ের আংটি কোন হাতে পরে,বিয়ের সোনার আংটি,kfplanet.com,

Leave a Comment