Skip to content

তাড়াতাড়ি-দ্রুত-জলদি ভালো বিয়ে হওয়ার জন্য দোয়া

    বিবাহ একটি সুন্নত এবং বিয়ে একটি মানবিক প্রয়োজন। বিবাহের ক্রম ব্যক্তির শারীরিক, মানসিক এবং আর্থিক অবস্থার উপর নির্ভর করে। তাই বিয়ের হুকুম সবার জন্য এক নয়। বরং ব্যক্তিভেদে বিবাহকে ফরজ, ওয়াজিব, সুন্নাত, মুবাহ, মাকরূহ ও হারাম হিসেবেও গণ্য করা হয়। তবে কার কবে বিয়ে হবে তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। কিছু ভাগ্যবান পুরুষ ও মহিলা আছে যারা বয়স বাড়ার সাথে সাথে বিয়ে করে এবং তারা তা সম্পন্ন করে। আবার অনেক নারী-পুরুষ আছেন যারা বিয়ের প্রস্তাব পাই কিন্তু বিয়ে করা সহজ নয়। আবার অনেক নারী-পুরুষ আছেন যারা বিয়ের প্রস্তাব না পেয়ে পুরোপুরি হতাশ। কারন  নারী ছাড়া পুরুষ এবং পুরুষ ছাড়া নারীর জীবন অসম্পূর্ণ। তাই চলুন জেনে আসি তাড়াতাড়ি-দ্রুত-জলদি ভালো বিয়ে হওয়ার জন্য দোয়া সমূহ।

    পবিত্র কোরআনে এসেছে, ‘আর তাঁর (আল্লাহ) নিদর্শনাবলির মধ্যে রয়েছে যে তিনি তোমাদের জন্য তোমাদের থেকেই স্ত্রীদের সৃষ্টি করেছেন, যাতে তোমরা তাদের কাছে প্রশান্তি পাও। আর তিনি তোমাদের মধ্যে ভালোবাসা ও মায়া সৃষ্টি করেছেন।’ (সুরা রুম, আয়াত : ২১)

    তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার জন্য দোয়া

    আল্লাহ যে সময় দোয়া কবুল করেন, সে সময় বান্দা চাইলে তিনি কবুল করেন। অপেক্ষা করতে হবে, বান্দা অস্থির হলে চলবে না। তাই বলব, দোয়া কবুলের জন্য আপনি বেশি বেশি দোয়া করবেন। আপনি আল্লাহর কাছে বেশি বেশি চাইলে ইনশাআল্লাহ, আল্লাহ আপনার আশা পূরণ করবেন।

    তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার দোয়াঃ

    আরবিঃ  ﺭَﺑَّﻨَﺎ ﻫَﺐْ ﻟَﻨَﺎ ﻣِﻦْ ﺃَﺯْﻭَﺍﺟِﻨَﺎ ﻭَﺫُﺭِّﻳَّﺎﺗِﻦَﺍ ﻗُﺮَّﺓَ ﺃَﻋْﻴُﻦٍ ﻭَﺍﺟْﻌَﻠْﻨَﺎ ﻟِﻠْﻤُﺘَّﻘِﻴﻦَ ﺇِﻣَﺎﻣًﺎ

    উচ্চারণ : রাব্বানা-হাবলানা-মিন আজওয়া-জিনা- ওয়া যুররিইয়া-তিনা, কুররাতা আ‘ইউনিওঁ, ওয়াজ‘আলনা-লিলমুত্তাকিনা ইমা-মা-।

    অর্থ : হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদের স্ত্রীদের পক্ষ থেকে এবং আমাদের সন্তানের পক্ষ থেকে আমাদের জন্যে চোখের শীতলতা দান করো এবং আমাদের আল্লাহভীরুদের জন্য আদর্শস্বরূপ করো। (সুরা ফুরকান, আয়াত : ৭৪)

    উত্তম জীবনসঙ্গী লাভের দোয়াঃ

    আরবিঃ  ﺭَﺏِّ ﺇِﻧِّﻲ ﻟِﻤَﺎ ﺃَﻧْﺰَﻟْﺖَ ﺇِﻟَﻲَّ ﻣِﻦْ ﺧَﻴْﺮٍ ﻓَﻘِﻴﺮٌ

    উচ্চারণ : রাব্বি ইন্নি লিমা- আনজালতা ইলাইয়া মিন খাইরিন ফাকির।

    অর্থ : হে আমার পালনকর্তা, তুমি আমার প্রতি যে অনুগ্রহ পাঠাবে, আমি তার মুখাপেক্ষী। (সুরা আল-কাসাস, আয়াত : ২৪)

    ভালো বিয়ে হওয়ার দোয়া

    কিন্তু দ্রুত বিয়ে করে নেয়াই ভালো। অনেকের বয়স অতিক্রম হয়ে যায়, তারপরও বিয়ে হয় না। তাদের জন্য এই আমলটি দেয়া হলো;

    যেসব যুবক-যুবতীদের বিবাহের বয়স অতিক্রম হয়ে যাচ্ছে কিন্তু বিয়ে হচ্ছে না, তাদের মধ্যে যুবকেরা ডান হাত দিয়ে বাম হাতের কব্জি চেপে ধরে এবং যুবতীরা বাম হাত দিয়ে দান হাতের কব্জি চেপে ধরে প্রত্যহ ফজরের নামাজের পর সূর্যোদয়ের আগে ৪০ বার হিসাবে ৪০ দিন পর্যন্ত  ইয়া ফাত্তাহু (الفتاح) অর্থ হে উন্মুক্তকারী বা প্রস্তুকারী পড়বেন।

    ইয়া ফাত্তাহু (الفتاح) আল্লাহর একটি পবিত্র নাম। বিয়ে ছাড়াও আল্লাহ তাআলার এই পবিত্র নাম ফজরের নামাজের পর দুই হাত বুকের উপর রেখে ৭১ বার পাঠ করলে অভাব দূর হবে,মনোবল বৃদ্ধি পাবে এবং সকল কাজ সহজ হবে ইনশাল্লাহ।


    বিয়ে হওয়ার দোয়া, বিয়ে হওয়ার দোয়া কি, ভালো বিয়ে হওয়ার দোয়া , বিয়ে তারাতারি হওয়ার দোয়া,বিয়ে তাড়াতাড়ি হওয়ার দোয়া, বিয়ে হওয়ার জন্য দোয়া, সহজে বিয়ে হওয়ার আমল, বিয়ে হবার দোয়া, জলদি বিয়ে হওয়ার দোয়া, তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার দোয়া, খুব তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার দোয়া ,দ্রুত বিয়ে হওয়ার দোয়া, ছেলেদের তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার দোয়া, তারাতারি বিয়ে করার দোয়া, তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার জন্য দোয়া, তাড়াতাড়ি বিয়ে হওয়ার আমল, তাড়াতাড়ি বিয়ে হবার দোয়া, দ্রুত বিবাহ হওয়ার দোয়া, তাড়াতাড়ি বিবাহ হওয়ার দোয়া, যে দোয়া পড়লে তাড়াতাড়ি বিয়ে হয়, বিবাহ হবার দোয়া,druto biye howar dua

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.