Skip to content

সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি অনলাইন আবেদন ২০২২ ফরম,লিংক,লগিন (pmeat gov bd)

    ২০২২ সালের ষষ্ঠ, নবম ও একাদশ শ্রেণির উপবৃত্তির তথ্য এন্ট্রির নির্দেশনা প্রদান করেছে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট। ৬ষ্ঠ ও ১১শ শ্রেনির নতুন ভুর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের নিকট হতে প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সংগ্রহকরণ প্রসঙ্গে নির্দেশনা জারি করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। বৃত্তির টাকা পেতে এমআইএস সফটওয়্যারে শিক্ষার্থীদের তথ্য এন্ট্রির ৬ দফা নির্দেশনা দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। সকল সরকারি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ২০২২ সালে ৬ষ্ঠ, ৯ম ও ১১শ শ্রেণির ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের মধ্যে উপবৃত্তির যোগ্য শিক্ষার্থীদের ডাটা অনলাইনে প্রেরণ করার এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ভর্তি কার্যক্রম শেষ হলেই উপবৃত্তির জন্য অনলাইনে তথ্য এন্ট্রির কাজ শুরু হবে। আপনি উপবৃত্তি কর্মসূচির বিস্তারিত তথ্য জানতে আমদের ওয়েব সাইট দেখতে পারেন। উপবৃত্তির আবেদনের সকল তথ্য গুলি আপনাদের সামনে উপস্থাপন করব।

    সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি অনলাইন আবেদন ২০২২

    শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অধীনে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট্রের বাস্তবায়নাধীন সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচির ম্যানুয়াল অনুযায়ী ২০২২ সালের ৬ষ্ঠ এবং ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বৃত্তির অনলাইন আবেদন ফরম পূরণ করতে বলা হয়েছে। অনলাইনে ফরম পূরণ করার সময় সকল তথ্য গুলি নির্ভুল দিতে হবে, কারন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীদের তথ্য ভুলভাবে এন্ট্রি করায় বৃত্তির টাকা পাঠাতে জটিলতা সৃষ্টি হয়। আগামী ১০.০৩.২০২২ তারিখ হতে শুরু করে ১০.০৪.২০২২ তারিখের মধ্যে HSP-MIS এ নির্ভুলভাবে এন্ট্রি করে সফটয়্যারের নির্ধারিত অপশন ব্যবহার করে উপজেলা/থানা শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট প্রেরণ করতে হবে। দেশের সব ভৌগোলিক এলাকার (মেট্রোপলিটন ও জেলা সদরের পৌর এলাকাসহ) মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে এবং বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডে পাঠদানে অনুমতি/স্বীকৃতিপ্রাপ্ত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব স্কুল-কলেজ এবং মাদরাসা এই কর্মসূচির আওতাভুক্ত হবে। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আওতাধীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বা কোর্সে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের তথ্য এন্ট্রি করা যাবে না

    সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচির গুরুত্ব পূর্ণ কিছু তথ্যঃ 

    উপবৃত্তির নামঃসমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি।
    শ্রেণীঃ৬থ,৯ম ও দ্বাদশ।
    HSP-MIS তথ্য এন্ট্রি শুরুঃ১০ মার্চ ২০২২।
    HSP-MIS তথ্য এন্ট্রি শেষঃ ১০ এপ্রিল ২০২২।
    তথ্য যাচাই বাচাই প্রকাশের তারিখঃ১৭ এপ্রিল ২০২২।
    হেল্প লাইনঃ০১৩১৬৬৫৮২৩০, ০১৩১৬৬৫৮২২৯।

    HSP-MIS এ তথ্য এন্ট্রি ও প্রেরণ:

    ২০২২ সালের ৬ষ্ঠ, ৯ম (শর্ত সাপেক্ষে) এবং ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের ১১শ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মধ্যে উপবৃত্তির জন্য আবেদন ফরম বিতরণ ও পূরণ করে জমা দিতে বলা হয়েছে।HSP ম্যানুয়াল মােতাবেক প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে গঠিত কমিটির মাধ্যমে শিক্ষার্থীর তথ্য যাচাই-বাছাই, তালিকা প্রণয়ন এবং তালিকা মােতাবেক শিক্ষার্থীদের তথ্য আগামী ১০.০৩.২০২২ তারিখ হতে শুরু করে ১০.০৪.২০২২ তারিখের মধ্যে HSP-MIS এ নির্ভুলভাবে এন্ট্রি করে সফটয়্যারের নির্ধারিত অপশন ব্যবহার করে উপজেলা/থানা শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট প্রেরণ করতে হবে।  তথ্যাদি যাচাই-বাছাই করে আগামী ১৭.০৪.২০২২ তারিখের মধ্যে নির্ধারিত অপশন ব্যবহার করে HSP/PMEAT-তে প্রেরণ করতে হবে।

    বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের তথ্য এমআইএস অন্তর্ভুক্তিতে  নির্দেশনাঃ 

    • বৃত্তির তথ্য এন্ট্রির নির্দেশনায় বলা হয়, বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের এন্ট্রি করা তথ্য যথাযথভাবে এন্ট্রি হয়েছে কিনা তা মনিটরিং করার জন্য দুই জন শিক্ষককে দায়িত্ব দিতে হবে।
    • অনলাইনে বৃত্তির এন্ট্রি কৃত তথ্যের সঠিকতা যাচাইয়ের জন্য প্রিন্টকপি শিক্ষার্থীদের দিতে হবে।
    • এন্ট্রি কৃত তথ্য সঠিক আছে বলে দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকগণ এবং শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রত্যয়ন গ্রহণ করতে হবে।
    • যেসব বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী বৃত্তির টাকা এখনও পায়নি তাদের তথ্য পুনরায় যাচাই করে প্রয়োজনীয় সংশোধনের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
    • বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের ব্যাংক সংক্রান্ত তথ্য (ব্যাংক হিসাব নম্বর) এন্ট্রির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।
    • শিক্ষার্থীদের ভুল হিসাব নম্বর দেয়ার ফলে বৃত্তির টাকা অন্য কোন একাউন্টে চলে গেলে প্রতিষ্ঠান প্রধানরা দায়ী থাকবেন।

    সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি অনলাইন আবেদন ২০২২

    সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট শিক্ষা মন্ত্রণালয়

    দেশের সব ভৌগোলিক এলাকার (মেট্রোপলিটন ও জেলা সদরের পৌর এলাকাসহ) মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে এবং বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডে পাঠদানে অনুমতি/স্বীকৃতিপ্রাপ্ত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব স্কুল-কলেজ আওয়তা ভুক্ত হবে। কেবল ষষ্ঠ এবং একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচির আওতায় উপবৃত্তি প্রাপ্তির আবেদন করতে পারবে। তবে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা যারা উপবৃত্তি কর্মসূচি বহির্ভূত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে জেএসসি/ জেডিসি পাস করে নতুন ভর্তি হয়েছে তারাও উপবৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।  শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদিত অপারেশন ম্যানুয়াল অনুসরণের মাধ্যমে সারাদেশে ষষ্ঠ, নবম ও একাদশ শ্রেণির আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে উপকারভোগী শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    "কনটেন্ট চুরি করে নিজকে চোর প্রমাণ করবেন না" by KFPlanet Team!