বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষা (১৪তম সহকারী জজ নিয়োগ )

১৪তম সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন সচিবালয়। এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ১৯ জানুয়ারি ২০২১  বিজেএসসি-র অফিশিয়াল ওয়েবসাইট www.bjsc.gov.bd -তে প্রকাশ করা হয়। সেজন্য আজ আমরা আলোচনা করব বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষা (১৪তম সহকারী জজ নিয়োগ ) । আমরা আপনাদের বিজে এস সার্কুলার ও গুরুত্ব তথ্য সম্বন্ধে ধারনা দিব।

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষা

বিচার বিভাগ সরকারের একটি স্বাধীন বিভাগ ও সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান বলা হয় । বাংলাদেশে দেওয়ানি ও ফৌজদারি মামলা সমূহে স্বচ্ছ ও দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য প্রতি বছর দক্ষ, যোগ্য ও আইন সম্পর্কে অভিজ্ঞদের পরীক্ষার মাধ্যমে সহকারী জজ হিসাবে নেওয়া হয়। প্রাথমিক, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার কেন্দ্র ও সময়সূচি আমাদের ওয়েবসাইটে জানানো হবে।

১৪ তম সহকারী জজ নিয়োগ

সহকারী জজ নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে অনেক গুলি নিয়ম নীতির মাধ্যমে যেতে হয় । এ সব ধাপ গুলি আপনাদের সুবিধার জন্য এই অনুচ্ছেদে সুন্দর করে তুলে ধরব।

আবেদন শুরুঃ ২১ জানুয়ারী ২০২১

আবেদন শেষঃ ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১

আবেদন ফীঃ ১২০০ টাকা

অফিশিয়াল ওয়েবসাইটঃ www.bjsc.gov.bd

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষার যোগ্যতা

শিক্ষাগতঃ সহকারী জজ পদে আবেদন করতে হলে স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে চার বছর মেয়াদি স্নাতক (সম্মান) বা আইন বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে। এসব পরীক্ষায় দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের সিজিপিএ থাকতে হবে।

বয়সঃ প্রার্থীর বয়স ৩২ বছরের বেশী হলে আবেদন করতে পারবেন না ।

জাতীয়তাঃ আবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে ।

পরীক্ষার সময় সূচিঃ

     সংখ্যা বিষয়  তারিখ দিন  সময়
সাধারণ বাংলা ৭/১১/২০২১ রবিবার দুপুর ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত
সাধারণ ইংরেজি ৮/১১/২০২১ সোমবার
বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয় ৯/১১/২০২১ মঙ্গলবার
গণিত ও বিজ্ঞান ১০/১১/২০২১ বুধবার
দেওয়ানী মামলা সংক্রান্ত আইন ১১/১১/২০২১ বৃস্পতিবার
অপরাধ সংক্রান্ত আইন ১৩/১১/২০২১ শনিবার
পারিবারিক সম্পর্ক আইন ১৪/১১/২০২১ রবিবার
সাংবিধানিক আইন, জেনারেল ক্লজেস অ্যাক্ট ও আইনের ব্যাখ্যা ১৫/১১/২০২১ সোমবার
সম্পত্তি সংশ্লিষ্ট অন্যান্য আইন ১৬/১১/২০২১ মঙ্গলবার

ঐচ্ছিক আইন বিষয় সমূহ

ঐচ্ছিক বিষয় ১ ও ঐচ্ছিক বিষয় ২              ১৭/১১/২০২১                    বুধবার                  দুপুর ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষার সিলেবাস

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষার মানবন্টনঃ প্রথমে প্রাথমিক বা প্রিলিমিনারি MCQ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের প্রাথমিক পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। এমসিকিউ পরীক্ষায় ন্যূনতম পাস নম্বর ৫০। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা হবে। সকল বিষয়ের উপর প্রাথমিক পরীক্ষা MCQ হবে ১০০ নম্বরে। এবার এই প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ১০০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। একজন প্রার্থীকে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হলে গড়ে ৫০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ১০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। মৌখিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৫০

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষার সিলেবাস ০৬ টা বিষয়ের উপর। নিচে দেয়া হলোঃ

  1. এমসিকিউ MCQ প্রিলিমিনারিতে পরীক্ষা হবে- ১০০ নম্বরে
  2. লিখিত পরীক্ষা হবে- ১০০০ নম্বরে
  3. মৌখিক পরীক্ষা হবে-১০০ নম্বরে
  • বাংলা- ১০০ নম্বর
  • ইংরেজি -১০০ নম্বর
  • বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়সমূহ-১০০ নম্বর
  • সাধারণ গণিত-৫০ নম্বর
  • দৈনন্দিন বিজ্ঞান-৫০ নম্বর
  • আবশ্যিক বুদ্ধিমত্তা ও আইন বিষয়ের ওপর প্রশ্ন থাকবে -৫০০ নম্বর
  • ঐচ্ছিক আইন-১০০ নম্বর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *