Skip to content

অনলাইন থেকে আয় করার ১০ টি উপায় (১০ টি স্কিল যা ক্যারিয়ার ঘুরিয়ে দিবে)

    অনলাইন থেকে আয় করতে চাইলে,  আগে জানতে হবে আপনি কোন বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করবেন।  অর্থাৎ  অনলাইন ক্যারিয়ারে কোন স্কিল আপনার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত। ২০২৩ সালের চাহিদার শীর্ষে থাকা ১০ টি স্কিলের একটি তালিকা তৈরি করেছে কেএফপ্ল্যানেট টিম।

    পছন্দের এলাকায় পার্টটাইম/ফুলটাইম চাকরি খুঁজে পেতে এই অ্যাপটি ইন্সটল করে এখনই আবেদন করুন

    অনলাইন থেকে আয় করতে প্রথমেই উচিত একটি স্কিলকে সিলেক্ট করা। আমাদের নিচের দেয়া ১০ টি  দক্ষতার মাঝে আপনার পছন্দের স্কিলটি খুঁজে বের করুন। এরপর সেই স্কিলের উপর পড়াশোনা শুরু করে দিন, বেশি বেশি প্রেক্টিকালী কাজ করে নিজেকে প্রতিযোগিতার জন্য প্রস্তুত করুন।

    ২০২৩ সালের অনলাইন থেকে আয় করার ১০ টি উপায়

    1. আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (AI)
    2. ক্লাউড কম্পিউটিং
    3. অয়েবসাইট ডিজাইন
    4. অয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট
    5. মোবাইল এপ ডেভেলপমেন্ট
    6. ডাটা সাইন্স এন্ড এনালাইসিস
    7. ভিডিও এডিটিং
    8. গ্রাফিক্স ডিজাইন
    9. এফিলিয়েট মার্কেটিং
    10. এড পাব্লিশার

    অনলাইন থেকে আয় করার ১০ টি দক্ষতা

    ০১) আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (AI)

    কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির ভবিষ্যত খুব ভালো এবং একটি বড় মার্কেট তৈরি হচ্ছে। বড় বড় প্রযুক্তি জায়ান্ট এখন তাদের পরিষেবাগুলিতে AI শেবা বাস্তবায়নের জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। আপনিও অনলাইনে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স টিমে জয়েন করে বাসায় বসে ইনকাম শুরু করে দিতে পারেন।

    ০২) ক্লাউড কম্পিউটিং

    একজন ক্লাউড কম্পিউটিং ইঞ্জিনিয়ার বা এমনকি একজন প্রোগ্রামার হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় দক্ষতা শেখার উপর মনোযোগ দেওয়া উচিত।তারপর আপনি SaaS (একটি পরিষেবা হিসাবে সফ্টওয়্যার) ব্যবসায় নিজে যুক্ত হতে পারবেন। এছাড়া  স্টার্টআপ কোম্পানি গুলিতে সেবা দেয়ার জন্য কন্ট্রাক করতে পারেন। বিভিন্ন সিস্টেমগুলি কনফিগার এবং স্থাপন করার পরে, বিভিন্ন কম্পানিকে পরিচালনা করার জন্য ক্লাউড কম্পিউটিং বিশেষজ্ঞ কর্মীদের প্রয়োজন।

    ০৩) ওয়েবসাইট ডিজাইন

    যে কোন প্রতিষ্ঠানের বা কোম্পানির অয়েবসাইটের ডিজাইনের দরকার পড়ে। তাদের সাইটের ডিজাইনগুলিতে লক্ষ লক্ষ ডলার খরচ করে। একজন ওয়েবসাইট ডিজাইনার হিসাবে, আপনি ফটোশপ, ইলাস্ট্রেটরের মতো সৃজনশীল সফ্টওয়্যার ব্যবহার করে।  ওয়েব ডিজাইনাররা ওয়েবসাইট-ভিত্তিক কোডিং ভাষাতেও দক্ষ, যেমন HTML এবং ক্যাসকেডিং স্টাইল শীট (CSS), কারণ তারা প্রায়শই প্রতিটি সাইটের কোড করার জন্য ব্যাক এন্ড বা ফ্রন্ট-এন্ড ডেভেলপারদের সাথে কাজ করে।

    ০৪) ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট

    ওয়েব ডেভেলপার কোডিং এবং প্রোগ্রামিং করে একটি ওয়েবসাইটকে প্রাণ দেয়। অনলাইনে সচল একটি ওয়েবসাইট কিংবা ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন তৈরি, নির্মাণ এবং রক্ষণাবেক্ষণ একজন ওয়েব ডেভেলপার করে থাকে। ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব প্রোগ্রামিং এবং ডাটাবেস ম্যানেজমেন্টও অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে।ওয়েব ডেভেলপমেন্ট একটি দ্রুত বর্ধনশীল ফ্রিল্যান্স জব। নিজেই ক্লায়েন্ট এবং প্রজেক্ট বেছে নিয়ে ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট ক্যারিয়ার শুরু করে দিতে পারেন।

    ০৫) মোবাইল এপ ডেভেলপমেন্ট

    মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট হল স্মার্টফোন, ট্যাবলেট এবং ডিজিটাল ডিভাইসের জন্য সফ্টওয়্যার তৈরির প্রক্রিয়া।  সাধারণত Android এবং iOS-এর জন্য এপ তৈরি করে থাকে এপ ডেভেলপারগন। আপনাকে প্রযুক্তিগত দক্ষতা, সৃজনশীলতা, সমস্যা সমাধানের মানসিকতা থাকতে হবে।

    মোবাইল অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট ফ্রিল্যান্সারদের জন্য দারুন একটি জব।  বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম এবং ডিভাইসের জন্য অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে ঘরে বসে আয় রোজগার করতে পারেন।

    ০৬) ডাটা সাইন্স এন্ড এনালাইসিস

    ডেটা সায়েন্স হলো গণিত, পরিসংখ্যান, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং কম্পিউটার প্রকৌশলের ক্ষেত্রের নীতি এবং অনুশীলনগুলিকে একত্রিত করে প্রচুর পরিমাণে ডেটা বিশ্লেষণ করা। একজন ফ্রিল্যান্স ডেটা সায়েন্টিস্ট হতে চান তবে এই ফিল্ডে ভালো করার সুযোগ আছে।

    ০৭) ভিডিও এডিটিং

    দিন দিন ভিডিও এডিটিং স্কিলের দক্ষতা দিন দিন বাড়ছে। বিশেষ করে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং এর জন্য ভাল ও মডার্ন ভিডিওর প্রচুর চাহিদা রয়েছে। একজন সফল ফ্রিল্যান্সার হয়ে অনলাইনে ইনকাম করতে চান তাহলে একজন ভিডিও এডিটর হিসেবে আপনাকে এক্সপার্টরুপে আবির্ভুত হতে হবে।

    লেখা, সম্মানিত এডমিনঃ কামাল হোসেন ফুয়াদ। (কম্পিউটার প্রকৌশলী, অনলাইন প্রফেশনাল)

    2 thoughts on “অনলাইন থেকে আয় করার ১০ টি উপায় (১০ টি স্কিল যা ক্যারিয়ার ঘুরিয়ে দিবে)”

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে যোগাযোগ করতে পারেনঃ kfsoft@yahoo.com যে কোন প্রয়োজনেঃ kfplanetbd@gmail.com