এসএসসি ভোকেশনাল ও দাখিল ভোকেশনাল ভর্তি নির্দেশিকা ২০২৪

সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ. টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট, স্বতন্ত্র কারিগরি প্রতিষ্ঠান,সরকারি/বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবংমাদ্রাসায় এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) শিক্ষাক্রমের ভর্তি নির্দেশিকা ২০২৩ নিয়ে বিস্তারিত তথ্য গুলি তুলে ধরব। বাংলাদেশে বর্তমান সময়ে ভোকেশনাল ও দাখিল ভোকেশনাল প্রতি ছাত্রছাত্রীদের আগ্রহ বাড়ছে। অনেকে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে ভর্তি হতে সকল তথ্য গুলি জানতে চান তাদের জন্য এক সাথে সকল তথ্য সংগ্রহ করে একটি অনুচ্ছেদে দেওয়া হল।

এসএসসি ভোকেশনাল ও দাখিল ভোকেশনাল ভর্তি নির্দেশিকা ২০২৩

  • বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড পরিচালিত এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) শিক্ষাক্রমে ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে নবম শ্রেণিতে সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ, টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট, স্বতত্র কারিগরি প্রতিষ্ঠান, সরকারি/বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবংমাদ্রাসা সমূহে শিক্ষার্থী ভর্তি নির্দেশিকা প্রণয়ন করা হলো।
  • বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড দেশ-বিদেশে চাকরি বাজারের জন্য দক্ষ জনশক্তি এবং তাদের প্রশিক্ষণপ্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ধারাবাহিক কয়েকটি জরিপ পরিচালনা করে। এ সকল জরিপ এবং অনুরূপ অন্যান্য প্রতিবেদনের ফলাফলমাধ্যমিক পর্যায়ে এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) শিক্ষাক্রমকে জাতীয় শিক্ষাব্যবস্থার একটি স্বতন্ত্র ধারা হিসেবে প্রবর্তনের জন্য সিদ্ধান্ত গ্রহণের নির্ভরযোগ্য ভিত হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছে।
  • এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল)শিক্ষাক্রম সাধারণ শিক্ষা ও মাদ্রাসা শিক্ষার সমন্বয়ে প্রণয়ন করা হয়েছে। এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) শিক্ষাক্রমের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতি বছর ১৪৪০ পিরিয়ড (প্রতি পিরিয়ড 8৫ মিনিট মেয়াদি) অধ্যয়ন করাছাড়াও ০৬ (ছয়) সপ্তাহ সংশ্লিষ্ট কর্মক্ষেত্রে বাস্তব প্রশিক্ষণগ্রহণ করতে হয়।

এসএসসি ভোকেশনাল ও দাখিল ভোকেশনাল ভর্তি ২০২৩

ভর্তি বিজ্ঞপ্তি এসএসসি ভোকেশনাল ও দাখিল ভোকেশনাল ভর্তি নির্দেশিকা ২০২৩
শিক্ষাক্রম ২০২৩
ট্রেড ২টি
আবেদন বিতরণ ১৯ নভেম্বর ২০২৩
আবেদন বিতরণ শেষ তারিখ ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩
নির্বাচিত শিক্ষার্থীর তালিকা প্রকাশ ২০ ডিসেম্বর ২০২৩
শিক্ষার্থী ভর্তি ২১ থেকে ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩
ক্লাস শুরুর তারিখ ০২  জানুয়ারি  ২০২৪

আবেদনের যোগ্যতা ও নিয়মাবলী 

  • এসএসসি (ভোকেশনাল) এবং দাখিল (ভোকেশনাল)শিক্ষাক্রমে নবম শ্রেণিতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা দেশের যে কোনো শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট/জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট/অষ্টম শ্রেণি উত্তীর্ঘরা ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।
  • সরকারি প্রতিষ্ঠানের ১ম শিফটে ভর্তিচ্ছু প্রার্থীদের ২০২৩ অথবা এর পরবর্তী সময়ে জেএসসি/জেডিসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। সরকারিপ্রতিষ্ঠানের ২য় শিফ্ট এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের জন্য জেএসসি জেডিসি/অষ্টম শ্রেণি উত্তীর্ণদের পাশের সন শিথিল যোগ্য।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে ২০২৩ শিক্ষাবর্ষে নবম শ্রেণিতে ভর্তির জন্য প্রতিষ্ঠান প্রধানগণ নিজ দায়িত্বে বোর্ডের কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটি কর্তৃক প্রণীত নির্দেশিকা অনুসরণ পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।
  • ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে এবং নিজ হস্তাক্ষরে ফরম পূরণ করতে হবে।
  • ভর্তিচ্ছু প্রার্থী যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে ইচ্ছুক সে প্রতিষ্ঠান হতে (ভর্তির আবেদনপত্র/ফরম, নির্দেশিকার মূল্য এবং অন্যান্য খরচ মিটানোর জন্য) অফেরতযোগ্য ১২০.০০ (একশত বিশ) টাকার বিনিময়ে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড প্রণীত ভর্তি নির্দেশকা ও ভর্তির আবেদনপত্র/ফরম সংগ্রহ করতে হবে। ভর্তি ফরম
    নির্দেশিকা বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের ওয়েব সাইট থেকে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ডাউনলোড করে নেবে।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চালুকৃত ট্রেসমূহে নবম শ্রেণিতে ট্রেড ভিত্তিক শিক্ষার্থী ভর্তি করতে হবে।
  • লটারির মাধ্যমে ট্রেড ভিত্তিক ভর্তি তালিকা তৈরি করতে হবে।
  • প্রার্থীকে ভর্তির আবেদনপত্রের সাথে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট/জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট/অষ্টম শ্রেণি পাশের নশ্বরপত্রের সত্যায়িত/অনলাইন নম্বরপত্রের কপি, ০২ (দুই) কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত রঙ্গিন ছবি এবং ফরম সংহের সময় প্রাপ্ত রশিদ সংযুক্ত করতে হবে।
  • বীর মুক্তিযোদ্ধা-শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান/সন্তানদের সন্তান নূন্যতম যোগ্যতা থাকা সাপেক্ষে ভর্তির জন্য শূন্য আসনের ৫% কোটা সংরক্ষিত থাকবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড এবংস্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক/কর্মকর্তা/কর্মচারীর সন্তানদের জন্য ২% আসনে মেধানুযায়ী (পছন্দক্রমে) শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে। বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মুল ধারায় সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে ন্যুনতম যোগ্যতা থাকা সাপেক্ষে ভর্তির ক্ষেত্রে কোটা সংরক্ষিত থাকবে । তবে
    ক্ষেত্রে প্রমাণস্বরূপ যথাযথ কর্তৃপক্ষের প্রত্যয়ন দাখিল করতে হবে। মেয়েদের ২০% ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জন্য
    অগ্রাধিকার প্রদান করতে হবে। সংরক্ষিত কোটায় যোগ্য আবেদনকারী না পাওয়া গেলে মেধা তালিকা থেকে তা পূরণ করা যাবে।
  • প্রতি সপ্তাহে সর্বোচ্চ ৪০ পিরিয়ড প্রশিক্ষণ (ইন্ডাস্ট্রিয়াল আ্যাটাচমেন্ট) গ্রহণ করতে হবে। বছরে ৩৬ সপ্তাহ ক্লাস অনুষ্ঠিত হবে। অধিকন্তু ০৬ (ছয়) সপ্তাহ সংশ্লিষ্ট কর্মক্ষেত্রে বাস্তব।
  • চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রার্থীকে যাবতীয় ফি প্রদান করে নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে হবে।
  • প্রার্থীকে নির্ধারিত ফি প্রদানপূর্বক বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের নবম শ্রেণির রেজিস্ট্রেশন নির্ধারিত সময়সূচি মোতাবেক সম্পন্ন করতে হবে।
  • আসন সংখ্যা: সরকারি টিএসসি (TSC)-তে ভর্তির শিফট ও বিভিন্ন শ্রেণির আসন সংখ্যা কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে।
  • কোন অবস্থাতে এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) শিক্ষাক্রমে অধ্যয়নরত কোন শিক্ষার্থী একই শিক্ষাক্রমে পুনরায় ভর্তি হতে পারবে না অথবা একই শিক্ষাবর্ষে একজন শিক্ষার্থী একাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একত্রে ভর্তি হতে পারবে না।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়ার সময় বোর্ডে নিবন্ধন ভুক্তির জন্য প্রার্থীগণকে নির্ধারিত ফি ভিতি আবেদনপত্র ফি ৩০.০০ (ত্রিশ) টাকা, নিবন্ধন ফি ১৩০.০০ (একশত ত্রিশ )টাকা, ক্রীড়া ফি ৫০.০০ (পঞ্চাশ )টাকা, স্কাউটস/গার্লস গাইড ফি  ১৫.০০ (পনের) টাকা, রেড ক্রিসেন্ট ফি ৮.০০ (আট) টাকা, বিজ্ঞান
    প্রযুক্তি ফি ৭.০০ (সাত) টাকাসহ সর্বমোট ২৪০ (দইশ্রত চল্লিশ) টাকা প্রদানপূর্বক বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে নোটিশ মোতাবেক বোর্ডে প্রিন্ট আউট কপি জমা দিতে হবে।

এসএসসি ও মাদ্রাসায় নবম শ্রেনি ভর্তি নির্দেশিকা সার্কুলার ২০২৩

nine 1

nine 2

nine 3

nine 4

nine 5

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে যোগাযোগ করতে পারেনঃ kfsoft@yahoo.com যে কোন প্রয়োজনেঃ kfplanetbd@gmail.com